October 20, 2020

দুর্যোগে দেশের মানুষের পাশে না থাকার কারণ জানালেন তাজ

পুরো বিশ্বে ভয়ংকর রূপ ধারণ করেছে প্রাণঘাতী করোনা। করোনায় বিশ্বে প্রায় ২২ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। প্রতিদিন বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। বাংলাদেশেও দিনে দিনে ভয়ংকর হচ্ছে এই ভাইরাসটি। ৩৫ দিনে ১০০০ আক্রান্ত হওয়ার পর ৩৭ দিনে বেড়েছে আরও ৪০০ জন। দেশের এই সংকটাপন্ন সময়ে দেশের মানুষের পাশে না থাকার আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদ-এর ছেলে সোহেল তাজ। নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক একাউন্ট থেকে এই আক্ষেপের কথা জানান তিনি। সোহেলের স্ট্যাটাসটি বিডি২৪লাইভের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘আপনারা অনেকেই জানতে চেয়েছেন যে এই দুর্যোগময় সময়ে আমি ভাল আছি কিনা- কোথায় আছি ইত্যাদি। আপনারা জানেন যে হটলাইন কমান্ডো শো এর ৬ টি পর্ব সম্পূর্ণ করার পর মার্চ মাসে আমরা মিড সিজেন বিরতিতে যাই। কাজের ব্যাস্ততার কারণে আমার দুই মেয়েদের বহুদিন সময় দিতে পারি নাই আর তাই এই বিরতির সময় তাদেরকে দেখতে গত মার্চ মাসের ১৪ তারিখে আমেরিকা আসি। আমার দেশে ফেরার তারিখ ছিল ২৪ মার্চ কিন্তু ২১ মার্চ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের (আমেরিকা থেকে) ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় আর তাই আমার ফ্লাইট বাতিল হয়ে যায়। বর্তমানে আমি আমেরিকাতে অবস্থান করছি বা আটকে আছি।

এই দুর্যোগময় সময়ে আমি দেশের জন্য আর দেশের মানুষের জন্য কিছু করতে পারছিনা বলে খুব খারাপ লাগছে। স্বশরীরে না থাকতে পারলেও আপনাদের সবার জন্য দোয়া করছি আর আশা করছি ইনশাল্লাহ সব কিছু অতিসত্ত্বর স্বাভাবিক হয়ে যাবে। সবার প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে আপনারা অবশ্যই সতর্কতার সাথে সকল নির্দেশনা মেনে চলবেন- তাহলেই আপনি এবং আপনার পরিবার নিরাপদ ও সুস্থ্য থাকতে পারবেন। আমি আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানাচ্ছি সকল ডাক্তার, নার্স, পুলিশ, কৃষক/শ্রমিকসহ স্বেচ্ছাসেবকদের যারা জীবন বাজী রেখে মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে।’

//ofgogoatan.com/afu.php?zoneid=3266555